Wed. Feb 28th, 2024
    DIY Shampoo : ঘন ও লম্বা চুল করতে পারেন মাত্র ১ মাসের মধ্যে, ঘরে নিজেই তৈরী করুন এলোভেরা দিয়ে সাফলেট মুক্ত শ্যাম্পু (ছবি pixabay)DIY Shampoo : ঘন ও লম্বা চুল করতে পারেন মাত্র ১ মাসের মধ্যে, ঘরে নিজেই তৈরী করুন এলোভেরা দিয়ে সাফলেট মুক্ত শ্যাম্পু (ছবি pixabay)
    WhatsApp Group Join Now
    Telegram Group Join Now

     

    চুলের স্বাস্থ্য ধরে রাখার জন্যে স্ক্যাল্পও পরিষ্কার করা জরুরি

    চুলের যত্ন নেওয়ার পরিপ্রেক্ষ্য

    চুলের যত্ন নেওয়া হলে স্ক্যাল্প পরিষ্কার রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অপরিষ্কার স্ক্যাল্পে দানা বা ব্রেকআউট হতে পারে, যা চুলের স্বাস্থ্য ক্ষতি করতে পারে। এছাড়া, অতিরিক্ত চুল ঝরাও শুরু হতে পারে। এই কারণে চিকিৎসকরা নিয়মিত শ্যাম্পু করে স্ক্যাল্প পরিষ্কার রাখার পরামর্শ দেয়।

    প্রাকৃতিক উপাদানে বিশ্বাস

    অনেকেই কেমিকাল প্রোডাক্ট ব্যবহার করতে চান না, তাই ভরসা রাখেন প্রাকৃতিক উপাদান বা ভেষজ প্রোডাক্টের উপর। আপনিও কি তাঁদের মধ্যেই একজন? তবে কেমিকাল বেসড শ্যাম্পুর পরিবর্তে আপনি ব্যবহার করতে পারেন ঘরে তৈরি একটি ভেষজ শ্যাম্পু। অ্যালোভেরা এবং গ্রিন টি সহযোগে বাড়িতে কী ভাবে হেয়ার ক্লিনজার বানাবেন, শিখে নিন ধাপে ধাপে।

     

    DIY Shampoo : ঘন ও লম্বা চুল করতে পারেন মাত্র ১ মাসের মধ্যে, ঘরে নিজেই তৈরী করুন এলোভেরা দিয়ে সাফলেট মুক্ত শ্যাম্পু
    DIY Shampoo : ঘন ও লম্বা চুল করতে পারেন মাত্র ১ মাসের মধ্যে, ঘরে নিজেই তৈরী করুন এলোভেরা দিয়ে সাফলেট মুক্ত শ্যাম্পু

     

    অ্যালোভেরা – চুলের স্বাস্থ্যের জন্যে একটি অমূল্য সম্পদ

    চুলের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে অ্যালোভেরার জুড়ি মেলা ভার। কারণ এই প্রাকৃতিক উপাদানে রয়েছে ভিটামিন সি, এ, ই এবং বি১২। এছাড়া, অ্যালোভেরায় মিনারেল, সুগার, স্যাপোনিন ও স্যালিসাইলিক অ্যাসিডের সন্ধান মেলে।

    অ্যালোভেরার অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট গুণের প্রভাবে চুলের হাল ফিরবে চটজলদি। গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, অ্যালোভেরার উপস্থিত অ্যান্টিইনফ্ল্যামেটরি উপাদান স্ক্যাল্পের প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে। ফলে চুল পড়া কমতেও সময় লাগবে না।

    গ্রিন টি – চুলের স্বাস্থ্যের প্রশংসা

    গ্রিন টি স্বাস্থ্যের সুবিধার মতো, তাই চুলের যত্নেও এর ভূমিকা অপরিসীম। এতে উপস্থিত পলিফেনল উপকারী ভূমিকা পালন করে। গ্রিন টি-এর অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট গুণ চুলের ‘হাল হকিকত’ই বদলে দেয়। তাই আপনার কাস্টমমেড হেয়ার কেয়ারে প্রোডাক্টে গ্রিন টি থাকা কিন্তু আবশ্যক!

     

    গ্রিন টি এবং চুলের বৃদ্ধি

    গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, গ্রিন টি-এ উপস্থিত উপকারী উপাদান চুলের বৃদ্ধিতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাহলে বুঝতেই পারছেন, কেন আপনার ঘরোয়া শ্যাম্পুতে গ্রিন টি রাখা বেশ জরুরি?

    ঘরে তৈরি সালফেট ফ্রি শ্যাম্পু

    প্রয়োজনীয় উপাদান

    1. ৩ গ্রিন টি ব্যাগ
    2. ২০০ মিলি জল
    3. ১০০ মিলি লিকুইড সোপ
    4. ২ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল
    5. ১ চা চামচ আমন্ড অয়েল

    তৈরি প্রণালী

    প্রথম ধাপ

    1. একটি সস্প্যানে ২০০ মিলি জল নিন। মাঝারি আঁচে জল গরম করুন।
    2. এরপর এই জলের মধ্য়েই মিশিয়ে দিন ৩টি গ্রিন টি ব্যাগ। আরও ২০ মিনিট এই জল ফুটিয়ে নিন। এতে জলের পরিমাণ অনেকটা কমে যাবে। তারপর গ্রিন টি-এর ব্যাগগুলি জল থেকে তুলে নিন। আঁচ বন্ধ করে জল ঠান্ড হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

    দ্বিতীয় ধাপ

    1. জল ঠান্ডা হওয়ার পরে তাতে ১০০ মিলি লিকুইড সোপ মেশান।
    2. পরিমাণ মতো অ্যালোভেরা জেল এবং ১ চামচ আমন্ড অয়েলও মিশিয়ে দিন।
    3. প্রতিটি উপকরণ ভালো করে মেশানোর পরে আপনি আপনার পছন্দের এসেনশিয়াল অয়েলও ২-৩ ফোঁটা মেশাতে পারেন। তাহলেই তৈরি আপনার ঘরোয়া সালফেট ফ্রি শ্যাম্পু।

     

    কিভাবে ব্যবহার করবেন?

    এই শ্যাম্পু আপনি সপ্তাহে ২-৩ দিন ব্যবহার করতে পারেন। প্রথম চুল ভিজিয়ে নিন, তারপর হাতে পরিমাণ মতো শ্যাম্পু নিয়ে স্ক্যাল্পে লাগান। কিছুক্ষণ মাসাজ করুন এবং চুল ধুয়ে নিন। এরপর আপনার রেগুলার কন্ডিশনার লাগাতে ভুলবেন না। নিয়মিত এই শ্যাম্পু ব্যবহারেই আপনার চুল হয়ে উঠবে জেল্লাদার। গ্রিন টি ও অ্যালোভেরার গুণে চুলের বিভিন্ন সমস্যা সমাধান হবে।

    চুলের স্বাস্থ্য জন্য এই শ্যাম্পু সম্পর্কে আরও কিছু

    চুলের স্বাস্থ্য জন্য এই শ্যাম্পু অত্যন্ত কার্যকরী হতে পারে, এটি কেমিক্যাল বেসড প্রোডাক্টগুলির সাথে তুলনা করে। প্রাকৃতিক উপাদানের ব্যবহার চুলের স্বাস্থ্য বজায় রাখতে সাহায্য করতে পারে এবং চুলের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে সাহায্য করতে পারে।

    5 টি জরুরি প্রশ্ন

    1. এই শ্যাম্পু কতটুকু ব্যবহার করতে পারি?

    এই শ্যাম্পু সপ্তাহে ২-৩ দিন ব্যবহার করতে পারেন।

    1. কি কারণে প্রাকৃতিক শ্যাম্পু ব্যবহার করতে উত্সাহী হওয়া উচিত?

    প্রাকৃতিক শ্যাম্পু শ্যাম্পুর ব্যবহারে কেমিক্যাল প্রোডাক্টের নেগেটিভ প্রভাব ব্যত্যয়িত করতে সাহায্য করে, যা চুলের স্বাস্থ্য সহ মানবের স্বাস্থ্যে উপকারী হতে পারে।

    1. কি কি উপাদান এই শ্যাম্পুতে রয়েছে?

    এই শ্যাম্পু অ্যালোভেরা জেল, গ্রিন টি, লিকুইড সোপ, আমন্ড অয়েল ইত্যাদি উপাদানের সমন্বয়ে তৈরি হয়েছে।

    1. কতক্ষণ এই শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে যাতে সবচেয়ে ভাল ফল পাওয়া যায়?

    এই শ্যাম্পুটি ৩ সপ্তাহ ব্যবহার করতে পারেন। তার বেশি সময়ে সংরক্ষণ করার চেষ্টা করবেন না।

    1. আমি কীভাবে এই শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারি?

    প্রথমে চুল ভিজিয়ে নিন, তারপর হাতে পরিমাণ মতো শ্যাম্পু নিয়ে স্ক্যাল্পে লাগান। কিছুক্ষণ মাসাজ করুন এবং চুল ধুয়ে নিন। এরপর আপনার রেগুলার কন্ডিশনার লাগাতে ভুলবেন না।

    এই নির্দেশনা অনুসরণ করে চুলের স্বাস্থ্য সংরক্ষিত রাখতে সাহায্য পেতে পারেন এই শ্যাম্পু দ্বারা। স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও সদ্গুরু চুল!