Thu. Feb 22nd, 2024
    WhatsApp Group Join Now
    Telegram Group Join Now

    অনেকেরই প্রতিদিন সকালে খালি পেটে পানি খাওয়ার অভ্যাস আছে। তবে এই কাজ করতে পারলে অনেক সুবিধা আছে। তবে পানির সঙ্গে সঠিক পরিমাণে দারুচিনি মিশিয়ে নিলে এর গুণাগুণ বেড়ে যাবে। তাই প্রতিদিন সকালে দারুচিনির রস পান করার চেষ্টা করুন। এর মাধ্যমে আপনি আপনার শরীরের সার্বিক স্বাস্থ্য বজায় রাখতে পারবেন।

    বিশেষজ্ঞদের মতে, আমার দেশে প্রাচীনকাল থেকেই দারুচিনি ছিল। তাই আয়ুর্বেদিক বিশেষজ্ঞদের কাছে এই মশলাটির বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। কিন্তু বাঙালি রান্নায় আম খুব একটা ব্যবহার করা হয় না। পরিবর্তে, এই মশলা শুধুমাত্র কিছু সূক্ষ্ম পাদা প্রস্তুত করার সময় ব্যবহার করা হয়। কিন্তু আপনি জেনে অবাক হবেন যে দারুচিনির কিছু উপকারী গুণ রয়েছে যা আপনার শরীরের সামগ্রিক স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে পারে। তাই তিন ধরনের রান্নায় এই মশলার ব্যবহার বাড়াতে হবে।

    শুধু রান্নাতেই নয়, প্রতিদিন সকালে দারুচিনি মেখে পানি পান করলেও অনেক উপকার পাওয়া যায়। অনেক মারণ রোগ দূরে থাকে। তো, আর কোনো ঝামেলা না করে চলুন দেখে নেওয়া যাক এই পানীয়টির গুণাগুণ-

     

    1. ওজন কমানোর জন্য প্রস্তুত করুন

    Benefits of Cinnamon Water: প্রতিদিন সকালে জলে এই জিনিস মিশিয়ে খান, তাতেই ফিট থাকবে 'পেট থেকে হার্ট।

     

    আপনার ওজন বেশি হলে তা কমানোই বুদ্ধিমানের কাজ। তা না হলে একাধিক বিপাকীয় রোগ যেমন উচ্চ রক্তচাপ, সুগার, কোলেস্টেরল ইত্যাদি আরও জটিল সমস্যার সৃষ্টি করবে। তাই শরীর থেকে অতিরিক্ত চর্বি বের করে দিতে হবে। যাইহোক, আপনি যদি স্থূলতা এড়াতে চান তবে আপনি দারুচিনির জল ব্যবহার করতে পারেন। এই পানি পান করলে শরীরের মেটাবলিজম বৃদ্ধি পায়। ফলস্বরূপ, চর্বি দ্রুত হারে নির্গত হয়। এমনকি চিনি নিয়ন্ত্রণের কাজেও জুরিদের বোঝা ন্যায্য!

    2. ডায়াবেটিস দমন করা যায়

     

    ডায়াবেটিস একটি মারাত্মক রোগ। শিশুর এই রোগটি খেলে চোখ, স্নায়ু ও কিডনির মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। তাই ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণ করা খুবই জরুরি। দারুচিনির জল আপনাকে এই কাজে সাহায্য করতে পারে। এই পানীয়ের নিয়মিত সেবন ইনসুলিন প্রতিরোধ ক্ষমতা কমাতে পারে। ফলে চিনির মতো রোগ সহজেই নিয়ন্ত্রণে থাকে।

     

     

    ফলে চিনির মতো রোগ সহজেই নিয়ন্ত্রণে থাকে। তাই ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করতে চাইলে প্রতিদিন সকালে এই পানীয়টি পান করতে চান। আপনি জেনে অবাক হবেন যে, চিনি নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি, দারুচিনির জল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও সাহায্য করতে পারে।

     

     

    3. চক্র বা পিরিয়ড চক্র সমন্বয় রাখে

    Benefits of Cinnamon Water: প্রতিদিন সকালে জলে এই জিনিস মিশিয়ে খান, তাতেই ফিট থাকবে 'পেট থেকে হার্ট।

     

    নারীরা ঋতুস্রাব সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যায় ভোগেন। বিশেষ করে, অনেকেই অনিয়মিত মাসিক চক্রের অভিযোগ করেন। আর এই সমস্যার সমাধান করতে চাইলে অবশ্যই প্রতিদিন সকালে এক গ্লাস দারুচিনির পানি পান করতে হবে। গবেষণায় দেখা গেছে যে নিয়মিত দারুচিনির জল পান করা শরীরের হরমোনের ভারসাম্য পুনরুদ্ধার করতে পারে। তাই মাসিক নিয়মিত হয়। এছাড়া মাসিকের ব্যথা কমাতেও দারুচিনির পানি খুবই কার্যকরী।

     

    4. ইমিউনিটি বৃদ্ধি

    Benefits of Cinnamon Water: প্রতিদিন সকালে জলে এই জিনিস মিশিয়ে খান, তাতেই ফিট থাকবে 'পেট থেকে হার্ট।

     

    আমাদের চারপাশে ভাইরাস এবং ব্যাকটেরিয়ার একটি সংগঠিত জগৎ রয়েছে। সুযোগ পেলে এই সব ব্যাকটেরিয়া আক্রমণ করবে। তখন বিভিন্ন সংক্রমণের ফাঁদে পড়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। তাই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো খুবই জরুরি। এই কাজে দারুচিনির পানি হতে পারে আপনার বন্ধু।

    এই পানীয়টিতে উপস্থিত অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তাই বিভিন্ন সংক্রামক রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে।

    5. আপনার হার্ট এবং পেট সুস্থ থাকবে

    Benefits of Cinnamon Water: প্রতিদিন সকালে জলে এই জিনিস মিশিয়ে খান, তাতেই ফিট থাকবে 'পেট থেকে হার্ট।

     

    গবেষণায় দেখা গেছে যে দারুচিনির জল হজমের রোগের চিকিৎসায়ও খুব কার্যকর। এই পানীয়তে উপস্থিত বেশ কিছু উপাদান হজমে সাহায্য করে। এছাড়াও, এই পানীয় শরীরের খারাপ কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে না। ফলে হার্ট সুস্থ থাকে।

    এক্ষেত্রে সারারাত পানিতে কিছু দারুচিনি রেখে দিন। তারপর সকালে উঠে পানি ঝরিয়ে খালি পেটে খান। এতে আপনি উপকৃত হবেন।

    Disclaimer :-এই প্রতিবেদনটি সচেতনতা বাড়াতে প্রস্তুত করা হয়েছে। কোন সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে একজন ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *